ঢাকা রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ইং | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংগীত শিল্পী ঐশী থেকে সুনাম কুড়িয়ে এখন ডা.ফাতিমা

প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবর ২০২১, রাত ১ঃ৩১

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত নোয়াখালীর খ্যাতিমান সংগীত শিল্পী ঐশী থেকে সুনাম কুড়িয়ে এখন ডা.ফাতিমা তুয যাহরা ঐশী।

সাত বছরের ক্যারিয়ারে অনেক শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন তিনি। সিনেমায় গান গেয়ে জিতেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। তবে ঐশীর পরিচয় আর সংগীতশিল্পীর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকছে না। এখন থেকে তিনি একজন চিকিৎসকও।

কিন্তু কীভাবে? সেই উত্তর ঐশী নিজেই দিয়েছেন ফেসবুকে। তিনি জানিয়েছেন, সোমবার তার এমবিবিএস পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। তাতে তিনি কৃতিত্বের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়েছেন। অর্থাৎ, এখন থেকে নিজের নামের পাশে ‘ডাক্তার বা ‘চিকিৎসক শব্দটি ব্যবহার করতে পারবেন এই গায়িকা।

চিকিৎসকের পোশাক পরা একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে ঐশী লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। আজকের এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা খুবই কঠিন। সর্বশক্তিমান আল্লাহর রহমতে আজ থেকে আমার নামের পাশে ডাক্তার শব্দটি যুক্ত হয়েছে। এখন থেকে আমি ডা. ফাতিমা তুয যাহরা ঐশী।

একই সঙ্গে তিনি তার পরিবার, শিক্ষক এবং বন্ধুদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। পাশাপাশি সবার কাছে দোয়াও চেয়েছেন।

ঐশী ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ঢাকার শমরিতা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি হয়েছিলেন। দীর্ঘ সময়ের যাত্রা সম্পন্ন করে সেখান থেকেই চিকিৎসক হয়ে বের হলেন তিনি।

উল্লেখ্য, নোয়াখালী সদরের মেয়ে ঐশী ২০১২ সালে একটি মোবাইল অপারেটর আয়োজিত প্রতিভা অন্বেষণ কর্মসূচির মাধ্যমে সঙ্গীত জগতে আত্মপ্রকাশ ঘটান। ২০১৫ সালে ‘ঐশী এক্সপ্রেস নামের একটি অ্যালবাম প্রকাশ করেন তিনি। এরপর একক ও সিনেমার গান এবং স্টেজ শো দিয়ে তিনি সঙ্গীতাঙ্গনে বিশেষস্থান দখল করে নেন। বিশেষভাবে ফোক ঘরানার গান করেন তিনি। তবে জোরালো কণ্ঠের অধিকারিনী ঐশী স্টেজে রক গানেও দারুণ মাতাতে পারেন শ্রোতাদের।

২০১৩ সালে নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করার পর ইন্টারমিডিয়েট পড়াশোনা করেন নোয়াখালী সরকারি কলেজে।