ঢাকা বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২ ইং | ৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঘাটাইলে আদিবাসী যুবতী উধাও

প্রকাশিত: ৩ ডিসেম্বর ২০২১, দুপুর ১ঃ১১

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে কলেজ পড়ুয়া আদিবাসী এক মেয়েকে (১৭)খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা।  উধাও হয়েছে মুসলমান ধর্মাবলম্বী এক যুবক (২২)এক যুবকের হাত ধরে উধাও হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রেমের সম্পর্কের এক পর্যায়ে আজ ৬ দিন ধরে মেয়েটিকে নিয়ে লাপাত্তা রয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

মুসলমান ধর্মের ছেলে ফরহাদ আর আদিবাসী কোচ গোত্রীয় মেয়ে ইতিরানী। সম্পর্কের এক পর্যায়ে মেয়েটিকে নিয়ে লাপাত্তা মুসলিম ঐ ছেলেটি। ইতি রানী (১৭) ঘাটাইল উপজেলার মালিরচালা গ্রামের জীবন চন্দ্র দাশের মেয়ে। 

মেয়েটির পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, গত শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে কলেজে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। খোঁজাখোঁজির পর সন্ধান না পেয়ে মেয়ের ভাই সঞ্জিত বর্মন বাদি হয়ে ঘাটাইল থানায় একটি জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছেন বলে জানা গেছে।


স্থানীয়রা জানান, মেয়েটি স্থানীয় কলেজের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী। সংসারের টানাপোড়েনে ভালুকার একটি গার্মেন্টস কারখানায় চাকরীর সুবাদে পরিচয় হয় একই প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত ওই যুবকের সাথে। ছেলেটি একবার মেয়ের বাড়িতেও এসেছিলো বলে জানান তারা।

স্থানীয় আব্দুস সালাম লিটন ভূঁইয়া বলেন, মেয়েটি আদিবাসী ও গরীব ঘরের সন্তান হওয়ায় করোনায় স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার সুযোগে সাগরদিঘী কলেজে ইন্টারমিডিয়েট পড়াশুনার পাশাপাশি পার্শ্ববর্তী ভালুকায় থানায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি করতো। চাকরির সুবাদে মেয়েটির সাথে ঐ ছেলেটির সম্পর্ক হতে পারে বলে আমরা ধারনা করছি। শুনেছি ঐ ছেলেটি একবার মেয়েটির বাড়িতেও এসেছিলো। আমরা ফ্যাক্টরিতে খোঁজ নিয়ে দেখেছি, ইতিরানীকে যেদিন থেকে পাওয়া যাচ্ছে না সেদিন থেকে ঐ ছেলেটিও কাজে অনুপস্থিত।

মেয়েটির বড় ভাই সঞ্জীত কুমার আক্ষেপ করে বলেন, আমরা আদিবাসী মানুষ। আমার বোনকে ফুসলিয়ে নিয়ে গেছে ফরহাদ। আমাদের জাতের হলেও কথা ছিলো এখন আমরা কি করবো ভেবে পাচ্ছি না। যেদিন থেকে বোনকে পাওয়া যাচ্ছে না সেদিন থেকে ছেলেটিও কাজে অনুপস্থিত। আমরা এতে নিশ্চিত হয়েছি ওই ছেলের সাথেই পালিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাগরদিঘী তদন্তকেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক সুরুজ্জামান বলেন, আমরা তথ্য -প্রযুক্তির মাধ্যমে ফরহাদ নামের ছেলেটির মোবাইল নম্বর (০১৬৪২-০৬২৮..) ট্যাগ করে দেখেছি। সর্বশেষ বাঘেরহাট জেলার কচুয়া থানায় তার অবস্থান নিশ্চিত হওয়া গেছে। বর্তমানে মোবাইলটির সুইচ অফ। তবে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।