ঢাকা শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১ ইং | ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

"শিক্ষার দর্পণ” লেখা-শর্মিষ্ঠা ঘোষাল

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, রাত ৯ঃ১০

মেয়েটি তখন বড্ড ছোটো

            ইস্কুলেতে যায়।

সহজ সরল অঙ্গ ভাষায়

           ইচ্ছা বোঝাতে চায়।

 

পাড়ায় লোকে এসে বলে

     "বুদ্ধিতো মেয়ের দারুণ চলে,

বড়ো হয়ে কী হবে খুঁকি !

        মস্ত বড়ো টিচার? 

 নাকি যাবে মহাকাশে

         কিংবা ইঞ্জিনিয়ার?"

 

ওইটুকু মেয়ে কী বা বোঝে

        জানে না অত কিছু!

শুধু জানে খেলার মাঝে

        মিছে ওষুধ দিতে কিছু।

 

মেয়েটি তখন হেসে বলে

সূঁচ ফোটাবো সবার হাতে।

জ্বর সর্দি কাশি হলে

      ওষুধ দেবো জলে গুলে।

 

বছর বিশেক পরে

হতে পারেনি ডাক্তার সে

    শত চেষ্টা করে।

স্কুল-কলেজের ডিগ্রী পেয়ে

পাড়ায় পড়ায় যত্ন নিয়ে।

বুঝতে পারে সংসারেতে

    অর্থের দরকার।

 

চাকরি নেই, অর্থ নেই

      স্বপ্নও নেই আর।

রাজপথ জুড়ে রয়েছে শুধু

      হাজার শিক্ষিত বেকার।।